Protect your Bank ATM card from fraud/misuse -ATM জালিয়াতি এর বিপদ রুখতে কিছু নিয়ম। - News2news India

News2news India

India's leading news & job information web portal.

Breaking

Home Top Ad

Wednesday, August 1, 2018

Protect your Bank ATM card from fraud/misuse -ATM জালিয়াতি এর বিপদ রুখতে কিছু নিয়ম।


ব্যাংক এটিএম জালিয়াতি নিয়ে তোলপাড় গোটা দেশ।উদ্বিগ্নে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে, ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ও পুলিশও। প্রায় প্রতি দিন অনেক মানুষের ব্যাংক থেকে লোপাট হয়ে যাচ্ছে প্রচুর প্রচুর টাকা।আপনার ব্যাংক এটিএম নিরাপদ তো ? তবে ভয় পাওয়ার কোন কারন নেই।কিছু নিয়ম মেনে চলুন  এই বিপদ এর আশঙ্কা কিছুটা কম করতে।



১) আপনার অ্যাকাউন্টের সঙ্গে নিজের মোবাইল নাম্বারটি অবশ্যই লিঙ্ক করান। SMS ও ইমেল অ্যালার্টের ব্যবস্থা চালু রাখুন।প্রয়োজনে ব্যাংক এ গিয়ে এই ব্যবস্থা চালু করিয়ে নিন। যাতে অ্যাকাউন্টে যেকোনও লেনদেন মুহূর্তের মধ্যেই আপনার নজরে আসে।


২) নিয়মিত ব্যাঙ্ক স্টেটমেন্ট চেক করুন।


৩) নির্দিষ্ট সময় অন্তর অন্তর  এটিএম পিন পরিবর্তন করুন।


৪) এটিএম ব্যবহারের সঠিক নিয়ম সম্পর্কে অবগত থাকুন।


৫) গার্ডহীন ATM থেকে টাকা তোলা বা যেকোনও লেনদেনের সময় সাবধান।প্রয়োজনে গার্ডহীন এটিএম এ টাকা না তুলে অন্য কোন এটিএম ব্যবহার করুন।


৬) একদিনে বড় লেনদেন এড়াতে নিজের ডেবিট কার্ডের একটি আপার লিমিট নির্দিষ্ট করে রাখুন।


৭) বিভিন্ন ব্যাঙ্কের ATM থেকে টাকান না তুলে নিজের ব্যাঙ্ক  এটিএম থেকেই টাকা তুলুন।


৮) ATM মেশিনে পিন টাইপ করুন খুব গোপনে। যতটা সম্ভব স্ক্রিন ও কিপ্যাড ঢেকে রাখুন নিজের হাত দিয়ে।


৯) ATM কার্ড ব্যবহারের জন্য কোনও অপরিচিতের সাহায্য নেবেন না। এবং এটিএম ব্যবহারের সময় অপরিচিত কাওকে এটিএম রুমে প্রবেশ করতে অনুমতি দেবেন না যদি সেখানে মাত্র একটি মেশিন থাকে।


১০) লেনদেন হয়ে গেলে অবশ্যই 'Cancel' বাটনটা প্রেস করতে ভুলবেন না। মনে করে নিজের কার্ডটি ও স্লিপটি নিন।


১১) যে কোনও জায়গায় আবার স্লিপটি ফেলবেন না। ফেলার আগে ভালো করে স্লিপটি ছিঁড়ুন।


১২) ATM কার্ড হারিয়ে গেলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যাঙ্কে জানান।


১৩) ATM-এ টাকা তোলা বা জমা দেওয়ার আগে একবার অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্সটা চেক করে নিন।


১৪) যদি ATM মেশিনে কার্ড আটকে যায় বা অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে গেল, কিন্তু টাকা বেরল না। সঙ্গে সঙ্গে ব্যাঙ্কে জানান।


১৫) কার্ডের পিন আপনি কারোর সঙ্গে শেয়ার করবেন না। এমনকী কোনও বন্ধু বা পরিবারের লোকের সঙ্গেও না। 

   এই কিছু সাবধানতা অবলম্বন করলে বিপদের সম্ভবনা অনেক টা হলেও কম করা যাবে।

1 comment:

Misti roy said...

Thanks for this useful post.

Post bottom ad